সরিষা ক্ষেত প্রদর্শন করেছেন কৃষি অফিসার

219

92442359হরিপুর (ঠাকুরগাঁও ) প্রতিনিধিঃ ঠাকুরগাঁওয়ের হরিপুর উপজেলার ৬টি ইউনিয়নে এ বছর সরিষার বাম্পার ফলন হয়েছে। চলতি মওসুমে এলাকার চাষীরা ধান গম এর পরিবর্তে লাভের আশায় সরিষা আবাদের দিকে ঝুকে পড়েছিল। আমন ধান ও বোরো ধান আবাদ করে লোকসান গুনতে হয়েছে বেশি। অনেকের উৎপাদন খরচ উঠে আসেনি। ধান চাষীরা মনে করেছিল চলতি মওসুমে সরিষা আবাদ করে অনেকটা লোকসান কাটিয়ে উঠতে পারবে। তাই এ বছর সরিষা আবাদের লক্ষ্যমাত্রা ছিল ১২০০ শত হেক্টর। আবাদ হয়েছে ৮২০ হেক্টর। উপজেলা কৃষি অফিস সূত্রে জানা গেছে। বর্তমান বাজারে উপজেলার একমাত্র বড় হাট যাদুরাণী হাটে মণ প্রতি সরিষা কাঁচা সাদা ১২০০ টাকা, কাঁচা কালো ১১৫০ টাকা, শুকনা সাদা ১৬০০ টাকা, শুকনা কালো ১৫০০ টাকা দরে বিক্রি হচ্ছে। পীরগঞ্জ উপজেলার সরিষা কমিশন ব্যবসায়ী মোঃ আবুল হোসেন ও মোঃ দবিরুল ইসলামের সহিত যোগাযোগ করলে তারা জানান যে, বর্তমান বাজার দরে সরিষা কিনে লোকসান দিতে হয়েছে ৮০,০০০ টাকা । তিনি আরও জানালেন যে, এ বছর সরিষা বিক্রেতার চেয়ে ক্রেতার সংখ্যা বেশি। যার কারণে সরিষা বেশি দামে কিনে কম দামে বিক্রি করতে হয়। অপরদিকে, পাহাড়গাঁও গ্রামের মোঃ আনারুল হক জানালেন যে, এ বছর ৩ বিঘা সরিষা আবাদ করে ২১ মণ সরিষা পেয়েছি। ১৩০০ টাকা মণ দরে বিক্রি করে বলে প্রতিবেদককে অভিহিত করেন।