রুয়েটে ছাত্রলীগের দু’গ্রুপের সংঘর্ষ,আহত ১

78
RUET
রাজশাহী প্রকৌশল ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয়
সালমান শাকিল রাবি প্রতিনিধি: তুচ্ছ ঘটনাকে কেন্দ্র করে রাজশাহী প্রকৌশল ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয় শাখা ছাত্রলীগের দু’গ্রুপের মধ্যে সংঘর্ষের ঘটনায় নির্ঝর নামের ছাত্রলীগ নেতা আহত হয়।গত বৃহস্পতিবার বিকেল থেকে সন্ধ্যা ৭ টা পর্যন্ত বিশ্ববিদ্যালয়ের শাখা ছাত্রলীগের সভাপতি ও সাধারণ সম্পাদকের গ্রুপের মধ্যে এ ঘটনা ঘটে। গুরুতর আহতবস্থায় ঐ ছাত্রলীগ নেতাকে রাজশাহী মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে ভর্তি করা হয়।জানা যায়,রুয়েট ছাত্রলীগের সভাপতি নাঈম রহমান নিবিড়ের অনুসারী ছাত্রলীগ নেতানির্ঝর ও সাধারণ সম্পাদক চৌধুরী মাহফুজুর রহমান তপুর অনুসারী জাকিরের মধ্যে কয়েকদিন আগে মনমালিন্যের সৃষ্টি হয়।তারা উভয়ই বিশ্ববিদ্যালয়ের কেমিক্যালফুড প্রোডকশন ই বিভাগের ১৬ সিরিজের শিক্ষার্থী।মনমালিন্যের জের ধরে স্থানীয় ছাত্রলীগের কিছু নেতা-কর্মী নিয়ে বিকেলে জাকিরকে হুমকি-ধামকি দেয় নির্ঝর। জাকিরকে হুমকি দিচ্ছে জানতে পেরে হামিদ হলে উপস্থিত হয়ে শাখা ছাত্রলীগের সাধারণ সম্পাদক চৌধুরী মাহফুজুর রহমান তপু।
প্রত্যক্ষদর্শী সূত্রে জানা যায়, রড, লাঠি-সোঠা, ধারাল অস্ত্রসহ ৩০-৪০ জন ছাত্রলীগ নেতাকে নিয়ে ঘটনাস্থলে উপস্থিত হয়েই শাখা ছাত্রলীগের সাধারণ সম্পাদক তপু সভাপতি গ্রুপের নির্ঝরকে ধাওয়া করে। পরে দু’গ্রুপের মধ্যে সংঘর্ষ বাধে। প্রায় ৫ ঘন্টা ধরে ধাওয়া পাল্টা ধাওয়ার এক পর্যায়ে দৌড়ে বঙ্গবন্ধু হলে যায় নির্ঝর। নির্ঝর ভিতরে গেলে হল গেট বন্ধ করে দেয় কর্তৃপক্ষ। পরে তালা ভেঙ্গে ভিতরে প্রবেশ করে নির্ঝরকে রড, লাঠি সোঠা দিয়ে বেধড়ক পেটায় তপুর উপস্থিতিতে তার অনুসারী ছাত্রলীগের নেতা-কর্মীরা। মারধরের ফলে নির্ঝরের ডান পা ভেঙ্গে যায়। এদিকে আহতাবস্থায় নির্ঝরকে রাজশাহী মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে ভর্তি করা হয়। তার অবস্থা আশংকাজনক বলে জানা গেছে। তবে মারধরের বিষয়টি অস্বীকার করে সাধারণ সম্পাদক চৌধরী মাহফুজুর রহমান তপু বলেন, জুনিয়র ছেলে সিনিয়রদের রুমে গিয়ে ভাঙচুর করছে এমন খবর জানতে পেরে সেখানে যাই। পরে একটু ঝামেলা সৃষ্টি হয়। বিষয়টি মিমাংসা হয়ে গেছে বলেও দাবি করেন তিনি।এ বিষয়ে জানতে রুয়েট ছাত্রলীগের সভাপতি নাঈম রহমান নিবিড় বলেন,বিভাগের বন্ধদের সাথে দ্বন্ধ ছিল। পরে হামিদ হলে ছাত্রলীগের কিছু নেতা গেলে সেখানে ধাক্কা-ধাক্কি ও মারধরের ঘটনা ঘটে।
RUET.
তুচ্ছ ঘটনাকে কেন্দ্র করে রাজশাহী প্রকৌশল ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয় শাখা ছাত্রলীগের দু’গ্রুপের মধ্যে সংঘর্ষের ঘটনায় নির্ঝর নামের ছাত্রলীগ নেতা আহত হয়।