রাজধানী জুড়ে পরিবহন সংকট

280
রাজধানী জুরে পরিবহন সংকট
রাজধানী জুরে পরিবহন সংকট

রাজধানীর পরিবহন শ্রমিকদের দুই পক্ষের সংঘর্ষের জের ধরে ঢাকার সায়েদাবাদ থেকে দূরপাল্লার বাস চলাচল আপাতত বন্ধ। পার্বত্য চট্টগ্রাম, কুমিল্লা, নোয়াখালী, সিলেটগামী অনেক যাত্রী সেখানে গিয়ে ফিরে আসছেন। অাজ সকাল থেকে সায়েদাবাদে এই চিত্র দেখা গেছে। শুধু দূরপাল্লার নয় পুরাে রাজধানী জুড়ে পরিবহন সংকট দেখা দিয়েছে। এতে করে অফিসগামী যাত্রীদের চরম দুর্ভোগে পড়তে হয়। গতকাল গুলিস্তানে একটি কার্যালয়ের দখল নিয়ে বাংলাদেশ সড়ক পরিবহন শ্রমিক ইউনিয়ন এবং ঢাকা সড়ক পরিবহন শ্রমিক ইউনিয়নের দ্বন্দ্বের কারণে যান চলাচল বন্ধ রয়েছে। এতে দুর্ভোগে পড়েছেন যাত্রীরা। বঙ্গভবনের পূর্ব দিকে শ্রমিক ইউনিয়নের ওই কার্যালয়টি আগে বাংলাদেশ সড়ক পরিবহন শ্রমিক ইউনিয়নের নিয়ন্ত্রণে ছিল। রবিবার রাতে ঢাকা জেলা শ্রমিক ইউনিয়ন তা দখলে নিলে বিবাদ শুরু হয়। সোমবার দুপুরে শ্রমিকদের দুই পক্ষের সংঘর্ষের কারণে তিন ঘণ্টা হানিফ ফ্লাইওভারে দিয়ে যান চলাচল বন্ধ ছিল। বিকালে পুলিশের হস্তক্ষেপে গাড়ি চলাচল পুনরায় শুরু হয়। ওই কার্যালয়টি পুলিশ নিয়ন্ত্রণে নিয়েছে বললেও তা এখনও ঢাকার ইউনিয়ন দখল করে রেখেছে বলে দাবি করেন ইউনিক পরিবহনের মহাব্যবস্থাপক। তিনি বলেন, তা নিয়ে গতরাতে উভয় পক্ষে দুই দফা বৈঠক হলেও কোনো সমঝোতা হয়নি। বাংলাদেশ পরিবহন শ্রমিক ফেডারেশনের সাধারণ সম্পাদক ওসমান আলী বলেন, ২০০৬ সালের শ্রম আইন অনুযায়ী শ্রমিকদের জাতীয়ভিত্তিক কোনো ইউনিয়ন থাকতে পারবে না। এর ফলে বাংলাদেশ সড়ক পরিবহন শ্রমিক ইউনিয়নের কার্যকারিতা ওখানেই শেষ হয়ে গেছে। যে অফিসটি নিয়ে বিরোধ, সেটি ঢাকা জেলা শ্রমিক ইউনিয়নের। আদালতের মাধ্যমেই এটি মীমাংসিত।