নির্মাণের কয়েকদিনের মধ্যেই ভেঙে পড়লো স্কুল

177
stairs collapse onlinesangbad
ভেঙে পড়া সিঁড়ি

মেহেরপুর ইষ্টাফরিপোটার : মেহেরপুরের গাংনী উপজেলার কাথুলী ইউনিয়নের নবীনপুর সরকারী প্রাথমিক বিদ্যালয়ের নির্মাণাধীন ভবনের ২য় তলার সিঁড়ি ভেঙ্গে পড়েছে। এ ঘটনায় এক রাজমিস্ত্রি শ্রমিক আহত হয়েছে। অভিযোগ উঠেছে, ভবন নির্মাণে ব্যাপক দুর্নীতি হয়েছে। এমনকি এলাকাবাসী অনেকে অভিযোগ করে বলছে, এই ভবন নির্মাণে ইট-বালুর সাথে কোনও সিমেন্টের ব্যবহার হয়নি। গত ২২ ডিসেম্বর ২য় তলার ওই সিঁড়ি ঢালাই করা হয়েছিল। এঘটনায় ওই ভবন নির্মানের ঠিকাদার ও প্রকৌশলীর বিরুদ্ধে ব্যবস্থা নেওয়ার দাবি জানিয়েছেন স্থাণীয় ও অভিভাবকরা। স্কুলের শিক্ষক ও স্থানীয়রা জানান, পিইডিপি-৩ প্রকপ্লের আওতায় ৬৩ লাখ ৫২ হাজার ৫শ টাকা বরাদ্ধে গত বছরের মে মাস কাজ শুরু করে তামান্না এন্টার প্রাইজ নামের একটি ঠিকাদারী প্রতিষ্ঠান।ওই ঠিকাদারী প্রতিষ্ঠানের সাথে এই ভবনের কাজ ভাগ করে নেন জেলা আওয়ামীলীগের সাধারণ সম্পাদক এম এ খালেক ও জনৈক্য মোনায়ামে হোসেন মুলাক। কাজের প্রথম থেকে সিমেন্ট কম দেওয়া, দুর্বল ইট ব্যবহার করাসহ নানা অনিয়ম করলেও ঠিকাদার প্রভাবশালী হওয়ায় তাদের বিরুদ্ধে স্থানীয়রা কথা বলার সাহস পায় না। স্থানীয় কয়েকজন শ্রমিক ও শিক্ষকরা এ অনিয়মের প্রতিবাদ করলে কয়েকজন শ্রমিক কাজ থেকে বাদ দেওয়া হয়। শিক্ষকরাও প্রতিবাদ করতে গেলে তাদের সাথে ঠিকাদার পক্ষের লোকজনের হাতাহাতির ঘটনা ঘটেছে বলে স্থানীয়রা অভিযোগ করেন। ঘটনার সময় নির্মানাধীন ২য় তলা ভবনের ছাদ ঢালাইয়ের জন্য সাটারিংএর কাজ শেষে সিঁড়ি দিয়ে নামতে গিয়ে দুই সপ্তাহ পূর্বে ঢালাই করা সিড়ি ভেঙ্গে নিচে পড়ে যায়।তবে ঠিকাদারদের একজন মোনায়েম হোসেন বলছেন, “ঠিকাদারি কাজে কোনও অনিয়ম হয়নি, মিস্ত্রিদের গাফিলতির কারণে এমনটা হয়েছে”।অন্যদিকে সেখানকার ইঞ্জিনিয়ার মাহবুবুল হক ভবন নির্মাণে অনিয়ম ও ঠিকাদারদের গাফিলতির কথা স্বীকার করেছেন।যে এলাকায় স্কুল ভবনটি নির্মাণ হচ্ছে ওই এলাকারই বাসিন্দা জানান, “সিমেন্ট, বালু-ইট সবকিছু ঠিকমতো মিলায়েতো কংক্রিট হয়। ওইখানে ভিতরেতো সিমেন্টই ছিলো না। মাটির মতো বড় বড় ঢেলার মতো পাথরের মতো ছিল, আপনে পা দিয়ে লাথি মারলে মাটির মতো ছিটে যাচ্ছে। সিমেন্ট না থাকলে জয়েন্ট হবে ক্যামনে, সিমেন্টইতো নাই”।স্থানীয় এই বাসিন্দা আরও জানালেন নির্মাণের সময় তাদের কাছে সন্দেহ লাগলেও কিছু বলতে পারেননি কারণ ওই এলাকার নেতাই ভবনটি নির্মাণে ঠিকাদারের কাজ করছিল।

construction of school onlinesangbad
নির্মাণাধীন স্কুল ভবন, এটারই দোতলার সিঁড়ি ভেঙে পড়েছে