ঢাকা আইনজীবী সমিতির নির্বাচন : বিএনপির বিজয়

562
Bar Association election
ঢাকা আইনজীবী সমিতির ২০১৭-১৮ কার্যনির্বাহী পরিষদের নির্বাচনে বিজয়ী বিএনপি-সমর্থিত নীল প্যানেল

ঢাকা,শনিবার ২৫ ফেব্রুয়ারি ২০১৭: গত বুধ ও বৃহস্পতিবার দুই দিন ধরে ঢাকা আইনজীবী সমিতির ২০১৭-১৮ কার্যনির্বাহী পরিষদের নির্বাচন অনুষ্ঠিত হয়। ঢাকা আইনজীবী সমিতির ২০১৭-১৮ কার্যনির্বাহী পরিষদের এবারের নির্বাচনে বিএনপি সমর্থিত নীল প্যানেল ২৭টি পদের মধ্যে সভাপতি ও সাধারণ সম্পাদকসহ ২১টি পদে বিজয়ী হয়েছে।বিএনপি-সমর্থিত নীল প্যানেল ৯টি সম্পাদকীয় ও ১২টি সদস্য পদ পেয়েছেন। অপরদিকে আওয়ামী লীগ সমর্থিত সাদা প্যানেলের আইনজীবীরা ট্রেজারারসহ ৬টি পদে জয়ী হয়েছেন।আওয়ামী লীগ সমর্থিত প্যানেল ৩টি সম্পাদকীয় ও ৩টি সদস্য পদ পেয়েছেন। ঢাকা বারের প্রধান নির্বাচন কমিশনার খোন্দকার আবদুল মান্নান শুক্রবার শেষরাতে আজ শনিবার খুবভোরে আনুষ্ঠানিকভাবে নির্বাচনের এই ফলাফল ঘোষণা করেন।
নির্বাচনে বিএনপি সমর্থিত নীল প্যানেলে ৯টি সম্পাদকীয় পদে বিজয়ীরা হলেন- সভাপতি খোরশেদ আলম, সাধারণ সম্পাদক আজিজুল ইসলাম খান বাচ্চু, জ্যেষ্ঠ সহসভাপতি  মো. রুহুল আমিন, সহসভাপতি কাজী মো. আব্দুল বারিক, জ্যেষ্ঠ সহসাধারণ সম্পাদক মো. সারয়ার কায়সার (রাহাত), সহসাধারণ সম্পাদক সৈয়দ নজরুল ইসলাম, লাইব্রেরি সম্পাদক আবুল কালাম আযাদ, দফতর সম্পাদক মো. আফানুর রহমান (রুবেল) ও ক্রীড়া সম্পাদক মোহাম্মদ জহিরুল ইসলাম (কাইয়ুম)।বিএনপি সমর্থিত নীল প্যানেলের বিজয়ী ১২ জন সদস্য হলেন- আরিফ হোসাইন তালুকদার, মো. আনোয়ার পারভেজ কাঞ্চন, মো. শহিদুল্লাহ, মো. শওকত উল্লাহ, মোহাম্মাদ আবুল কাশেম, মোস্তফা সারওয়ার মুরাদ, মোস্তরী আক্তার নুপুর, মিনারা বেগম, পান্না চৌধুরী, সৈয়দ মোহাম্মাদ আমিনুল হোসাইন পান্নু ও তামান্না খানম এরিন।
অন্যদিকে আওয়ামী লীগ সমর্থিত সাদা প্যানেলের ৩ সম্পাদকীয় পদে বিজয়ীরা হলেন- ট্রেজারার মো. হাসিবুর রহমান দিদার, সাংস্কৃতিক সম্পাদক অ্যাডভোকেট আফরোজা ফারহানা আহমেদ অরেঞ্জ ও সমাজকল্যাণ সম্পাদক প্রহলাদ চন্দ্র সাহা পলাশ।
আওয়ামী লীগ সমর্থিত সাদা প্যানেলের ৩ জন বিজয়ী হলেন- মাহমুদুল হাসান অমি, মো. আল-আমিন সরকার ও ওয়ায়েস আহমেদ কায়েস।
এবারের নির্বাচনে মোট ১৬ হাজার ১৯৭ জন ভোটারের মধ্যে ৮ হাজার ৯১০ জন ভোটারে তাঁদের ভোট প্রদান করেন ।এবারের নির্বাচনে দুই প্যানেলে মোট ৫৪ জন প্রার্থী প্রতিদ্বন্দ্বিতা করেন। দু’জন আইনজীবী স্বতন্ত্র পদে থেকে প্রতিদ্বন্দ্বিতা করেন ।নির্বাচিত এই কমিটি আগামী এক বছর ঢাকা বারের কার্যনির্বাহীর দায়িত্ব পালন করবেন।
<